AlokitoBangla
  • ঢাকা বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০
banner

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, কুষ্টিয়া জেলা শাখার সংবাদ সম্মেলন


FavIcon
শরিফ মাহমুদ,কুষ্টিয়া,প্রতিবেদক:
প্রকাশিত: নভেম্বর ২৬, ২০২৩, ১০:৩৫ পিএম
বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, কুষ্টিয়া জেলা শাখার সংবাদ সম্মেলন
বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, কুষ্টিয়া জেলা শাখার সংবাদ সম্মেলন

“নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতা বন্ধে এগিয়ে আসুন, সহিংসতা প্রতিরোধে বিনিয়োগ করুন" এই শ্লোগানকে সামনে রেখে কুষ্টিয়ায় আন্তর্জাতিক নারীনির্যাতন প্রতিরোধ দিবসে সংবাদ সম্মেলন করেছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, কুষ্টিয়া জেলা শাখা।

( দৈনিক আলোকিত বাংলা Apps এখন গুগল-প্লে স্টোরে )

গত ২৫ নভেম্বর শনিবার বিকেল ৪ টার দিকে কুষ্টিয়ার শহরের কোর্টপাড়াস্থ মাহাতাব উদ্দিন সড়কে কুষ্টিয়া জেলা মহিলা পরিষদের নিজস্ব কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। কুষ্টিয়া জেলা মহিলা পরিষদের সহ-সভাপতি শিপ্রানন্দীর সভাপতিত্বে আন্তর্জাতিক নারীনির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বিশ্ব মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনে দিবসটির নানাদিক তুলে ধরে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কুষ্টিয়া জেলা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তসলিমা খানম। 
সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্যানেল আইনজীবি এ্যাড. মীর আরশেদ আলী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা মহিলা পরিষদের সহ-সভাপতি রওশন আক্তার রুবি, লিগ্যাল এইড সম্পাদক নিলুফা বেগম, সাংগঠনিক সম্পাদক নূরজাহান বেগম, আন্দোলন সম্পাদক নাজমা আক্তার এবং অর্থ সম্পাদক শেখ সামসুন্নাহার। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ নারী-পুরুষের সমতা প্রতিষ্ঠা, নারীর মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা এবং পরিবার-সমাজ ও রাষ্ট্রে নারী ও কন্যার প্রতি সকল ধরণের সহিংসতামুক্ত মানবিক সংস্কৃতি গড়ে তোলার যে বৃহত্তর লক্ষ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল, সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে প্রতিবছর কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত কর্মসূচি গ্রহণ করে। নারীর প্রতি সংবেদনশীল দৃষ্টি ভঙ্গি গড়ে তোলা, জনসচেতনতা তৈরী করা, সরকারের করণীয় বিষয়ে সুপারিশসহ সিদ্ধান্ত গ্রহন ও নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে এডভোকেসিকরা, গণমাধ্যম, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ ও নির্মূলে সংগঠন বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।
বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ লক্ষ্য করছে যে, সম্প্রতিকালে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণের মতো ঘটনার বিস্তার ঘটছে উদ্বেগজনক ভাবে, ক্ষমতার ছত্রছায়ায় থেকে অপরাধীরা থেকে যাচ্ছে বিচারের বাইরে। সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এই নির্বাচনকে ঘিরে দেশে তৈরি হয়েছে অস্থির রাজনৈতিক পরিস্থিতি। পূর্বের অভিজ্ঞতায় দেখা গেছে নির্বাচনের পূর্বে, নির্বাচনের সময়কালে ও নির্বাচনের পরে নারী ও কন্যাদের প্রতি নানা ধরণের সহিংসতার ঘটনা ঘটে। এমনই এক সময়ে আমরা পালন করতে যাচ্ছি আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ। এবারে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষকে সামনে রেখে বৈশ্বিক পর্যায়ে আহ্বান জানানো হয়েছে নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে বিনিয়োগ করার জন্য। বাংলাদেশ মহিলাপরিষদ-এর আলোকে 'নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতা বন্ধে এগিয়ে- আসুন, সহিংসতা প্রতিরোধে বিনিয়োগ করুন' এই শ্লোগানকে কেন্দ্র করে এ বছর পালন করছে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ। 


 

Banner
Side banner
Side banner