AlokitoBangla
  • ঢাকা বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০
banner

সিরাজগঞ্জে ২৮ অক্টোবর থেকে বিএনপি‍‍`র ৯৮৬ নেতাকর্মী গ্রেফতার ও ৩৫টি মামলা দায়ের


FavIcon
এম দুলাল উদ্দিন আহমেদ, সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিবেদক:
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৬, ২০২৪, ০৭:০৮ পিএম
সিরাজগঞ্জে ২৮ অক্টোবর থেকে বিএনপি‍‍`র ৯৮৬ নেতাকর্মী গ্রেফতার ও ৩৫টি মামলা দায়ের
সিরাজগঞ্জে ২৮ অক্টোবর থেকে বিএনপি‍‍`র ৯৮৬ নেতাকর্মী গ্রেফতার ও ৩৫টি মামলা দায়ের

২৮ অক্টোবর ২০২৩ ঢাকা মহাসমাবেশ থেকে শুরু করে ১৫ জানুয়ারি ২০২৪ইং পর্যন্ত সিরাজগঞ্জ জেলার ১১টি থানায় ৩৫টি মামলা দায়ের এবং ৯৮৬জন নেতাকর্মী গ্রেফতার হয়েছেন। এদিকে গ্রেফতারকতদের মধ্যে ৮৮৭জন নেতাকর্মী আইনী লড়াইয়ের মাধ্যমে কারামুক্ত হয়েছেন এবং ৯৮জন এখও কারাগারে বন্দী রয়েছেন। অপরদিকে ৩৫টি মামলার বোঝা মাথায় বহনকারী নেতাকর্মীরা মহামান্য হাইকোর্ট থেকে পর্যায়ক্রমে আগাম জামিন নিচ্ছেন।

সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপি সুত্রে জানাগেছে,২৮ অক্টোবর ২০২৩ ঢাকা মহাসমাবেশ থেকে শুরু করে ১৫ জানুয়ারি ২০২৪ইং পর্যন্ত সিরাজগঞ্জ জেলার ১১টি থানায় ৩৫টি মামলা দায়ের এবং ৯৮৬জন নেতাকর্মী ঢাকায়সহ নিজ-নিজ এলাকা থেকে গ্রেফতার হয়েছেন। এরমধ্যে রয়েছেন সিরাজগঞ্জ সদরে ৪০০, কামারখন্দে ২৭জন,কাজিপুরে ২৬, রায়গঞ্জে ১২৮,তাড়াশে ৫৫, উল্লাপাড়ায় ৬৯,শাহজাদপুরে ৬০,বেলকুচিতে ১০৯,চৌহালীতে ১১, সলঙ্গায় ২৮ ও এনায়েতপুরে ৪১জন। এদিকে গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক তানভীর মাহমুদ পলাশ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক শামীম হোসেন হিটলার,সহ-দপ্তর সম্পাদক শেখ মোঃ এনামুল হক,রায়গঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি সামছুল ইসলাম,সাধারণ সম্পাদক, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ভিপি আয়নুল হক,সদর ইপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. নাজমুল ইসলাম,তাড়াশ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর, তাড়াশ উপজেলা বিএনপিনেতা অধ্যাপক আব্দুল হাকিম, রায়গঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, উল্লাপাড়া উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য একরামুল ফয়সাল শিপলু,চান্দাইকোনা ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু সামা,সোনাখাড়া ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম বাবু,ধুবিল ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম হাবু,ঝাঐল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও বিএনপিনেতা সাইদুল ইসলাম,জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আলীম, জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি রহিত ইসলাম রাজু,যুগ্নসাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম,রায়গঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক মোকাদ্দেস হোসেন সোহান,উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ইকবাল হোসেন, তাড়াশ উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্নআহ্বায়ক তানভীর মাসুদ,সিরাজগঞ্জ ইসলামিয়া সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক শাফিন আহমেদ জিসান ও সলঙ্গা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি আরিফুল ইসলাম আরিফসহ ৮৮৭জন নেতাকর্মী পর্যায়ক্রমে জামিনে মুক্ত হয়েছেন। এছাড়াও ৯৮জন নেতাকর্মী এখনও কারাগারে বন্দী রয়েছেন। তন্মধ্যে ঢাকা এবং কাশিমপুর কারাগারে বন্দী রয়েছেন ১৬জন ও সিরাজগঞ্জ জেলা কারাগারে বন্দী রয়েছেন ৮২জন। তবে কারামুক্ত ও কারাবন্দী নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রায় নেতাকর্মীই তৃণমুল পর্যায়ের। 

অপরদিকে সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির তথ্যমতে, ২৮ অক্টোবর২০২৩ থেকে ১৫ জানুয়ারি২০২৪ইং তারিখ পর্যন্ত সিরাজগঞ্জের ১১টি থানায় ৩৫টি মামলা দায়ের হয়েছে। এরমধ্যে সিরাজগঞ্জে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু, সহসভাপতি নাজমুল হাসান তালুকদার রানা,অমর কৃষ্ণ দাস,যুগ্নসাধারণ সম্পাদক ভিপি শামীম খান,রাশেদুল হাসান রঞ্জন,নুর কায়েম সবুজ, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ সুইট,মির্জা মোস্তফা জামান, আলমগির আলম, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রাজেশ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ,জেলা যুবদলের সভাপতি মির্জা আব্দুল জব্বার বাবু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক আব্দুল্লাহ আল কায়েস,জেলা যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলামিন খান, সাধারণ সম্পাদক মুরাদুজ্জামান মুরাদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্নআহ্বায়ক আহসান হাবিব উজ্জল,সদস্য সচিব মিলন হক রঞ্জু, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি জুনায়েদ হোসেন সবুজ ও সাধারণ সম্পাদক সেরাজুল ইসলাম সেরাজসহ জেলার শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জ সদর থানায় ৭টি মামলা দায়ের হয়েছে। অপরদিকে কামারখন্দে ৩টি,বেলকুচিতে ৩টি, শাহজাদপুরে ৪টি, উল্লাপাড়ায় ৩টি,কাজিপুরে ৩টি, সলঙ্গায় ৩টি,তাড়াশে ১টি,রায়গঞ্জে ৫টি,চৌহালীতে ১টি ও এনায়েতপুর থানায় ২টিসহ মোট ৩৫টি মামলা দায়ের হয়েছে। এ ৩৫টি মামলায় ৫শতাধিক নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত প্রায় সহস্রাধিক নেতাকর্মীকে আসামী করা হয়েছে। এসকল মামলার এজাহার নামীয় আসামীরা আত্মগোগনে থেকে মহামান্য হাইকোর্ট থেকে পর্যায়ক্রমে জামিন নেওয়ার প্রক্রিয়া করছেন। 

এদিকে সিরাজগঞ্জে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু, সহসভাপতি নাজমুল হাসান তালুকদার রানা,যুগ্নসাধারণ সম্পাদক ভিপি শামীম খান,রাশেদুল হাসান রঞ্জন,নুর কায়েম সবুজ,সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ সুইট,মির্জা মোস্তফা জামান, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রাজেশ,সহসাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ,জেলা যুবদলের সভাপতি মির্জা আব্দুল জব্বার বাবু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক আব্দুল্লাহ আল কায়েস,জেলা যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলামিন খান, সাধারণ সম্পাদক মুরাদুজ্জামান মুরাদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্নআহ্বায়ক আহসান হাবিব উজ্জল, সদস্য সচিব মিলন হক রঞ্জু,জেলা ছাত্রদলের সভাপতি জুনায়েদ হোসেন সবুজ ও সাধারণ সম্পাদক সেরাজুল ইসলাম সেরাজসহ সংশ্লিষ্ট মামলায় জড়িতরা মহামান্য হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়েছেন।

Banner
Side banner
Side banner