AlokitoBangla
  • ঢাকা সোমবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮
নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা

সাতক্ষীরায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার-৬


FavIcon
কালিদাস রায়,সাতক্ষীরা, প্রতিবেদক:
প্রকাশিত: জানুয়ারি ৭, ২০২২, ০৬:১৩ পিএম
সাতক্ষীরায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার-৬
সাতক্ষীরায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার-৬

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার খাজরা ইউনিয়নে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার ঘটনায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিম ও পরাজিত প্রার্থী ওহিদুল ইসলামসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়। এর আগে তারা দুই জন বাদী হয়ে রাতে পাল্টাপল্টি দুটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দুটিতে তারা দুই জনই একে অপরের নামসহ ১৬ জন করে আসামী করেন।গ্রেফতারকৃতরা হলেন, নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান শাহানেওয়াজ ডালিম, পরাজিত বিদ্রোহী প্রার্থী ওহিদুল ইসলাম, রাব্বি সরদার, মোস্তাকিম, মোহাম্মদ আলী ও রাসেল মোল্যা।
পুলিশ জানায়, বুধবার শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন শেষ হবার পর আশাশুনির  খাজরা ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার সকালে বিজয়ী প্রার্থী শাহনেওয়াজ ডালিমের কর্মী-সমর্থকরা অহিদুলের বাড়িসহ তার কর্মী-সমর্থকদের বাড়িতে হামলা চালায়। সকালে গেট ভেঙে তারা ওহিদুলের বাড়িতে ঢোকার চেষ্টা করে। এ সময় জীবন বাঁচাতে ওহিদুল তার বাড়ির ছাদের উপর থেকে লাইসেন্সকৃত শর্টাগান দিয়ে ১৭ রাউন্ড রাবার কার্তুজ ছুড়েন। উভয় পক্ষের সংঘর্ষে এ সময় কয়েকজন গুলিবিদ্ধসহ ১০ জন আহত হন। বিক্ষুব্ধ জনতা এ সময় ওহিদুলের বাড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ ঘটনাস্থল তল্লাশি চালিয়ে একটি শর্টগান ও গুলিসহ ওহিদুলকে গ্রেফতার করেন। পরে পুলিশ নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ডালিম ও তার কর্মী-সমর্থকরা অনাধিকারভাবে ওহিদুলের বাড়িতে প্রবেশের চেষ্টা ও খুন জখমের হুমকির অভিযোগে তাকেও গ্রেফতার করেন।আশাশুনির থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম কবির বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিম তার প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থী ওহিদুল ইসলামসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে, পরাজিত প্রার্থী ওহিদুল ইসলামও নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিমসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে আরো একটি মামলা দায়ের করেন।এই দুই মামলায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিম ও তার প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থী ওহিদুলসহ মোট ৬ জনকে রাতেই গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেলা হাজতে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, আইনশৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে কোন দর্লীয় গোষ্ঠিকে প্রধান্য দেয়া হয়নি। ফৌজদারী মামলায় যারাই অপরাধী তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

 

Side banner