AlokitoBangla
  • ঢাকা শনিবার, ২৮ মে, ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

ফুলকোচা টাকা আত্বসাতের পাঁয়তারায় মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ


FavIcon
জহুরুল ইসলাম,(নিজস্ব প্রতিবেদক) সিরাজগঞ্জ:
প্রকাশিত: মে ১২, ২০২২, ০৮:০৭ পিএম
ফুলকোচা টাকা আত্বসাতের পাঁয়তারায় মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ
ফুলকোচা টাকা আত্বসাতের পাঁয়তারায় মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ

ফুলকোচা গ্রামে জমি দেবার নামে ৩৩ হাজার টাকা আত্বসাতের ষড়যন্ত্রের জাল বুণতে মেতে উঠেছে সাবেক ইউপি সদস্যা লিপি বেগম (৪০) নামে এক গৃহবধু।এ ঘটনায়  চাচাতো বোন ভাইয়ের নিকট জমির দাবীতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। মামলার বাদী  সাবেক ইউপি সদস্যা একাধিক মামলাবাজ লিপি বেগম তার আত্বীয়স্বজনদের বিরুদ্ধে নানা প্রকার মামলা দিয়ে হয়রানী করার অভিযোগ তুলেছেন এলাকাবাসী।স্থানীয়রা জানান,ফুলকোচা মৌজার আরএস ৫৫৩ খতিয়ানে মৃত নজাব আলী গংরা ৮৮’র কাতে ৬৬ শতক জমির মালিক হন। নজাব আলী  বেঁচে থাকাবস্থায় সকল জমি ওয়ারিশিয়ানদের সমন্বয়ে মৌখিক ছাহাম বন্টন করে মারা যান। নজাব আলী এক ছেলে মোঃ আবু সাঈদ মন্ডল (৫২) ও এক বোন শহিদা খাতুন (৪৮)কে রেখে মারা যান।বাবা নজাব আলী বিক্রি শেষে এক ছেলে এক মেয়ের জন্য ১২ শতক জমি রেখে যান। ওই ১২ শতক জমির উপর মোঃ আবু সাঈদ মন্ডল ও শহিদা ঘর তুলে ২৪ বছর ধরে বসবাস করে আসছে। লিপি বেগমের বাবা মৃত বাহের আলী ওয়ারিশিয়ান সুত্রে ২২ শতক ও মৃত নজাব আলীর নিকট থেকে ৭ শতক জমি ক্রয় করে সমদয়  জমি ২৪ বছর যাবত ভোগ দখল করে আসছে। উভয় পক্ষ স্ব-স্ব স্থানে অবস্থান করার পরও আবু সাঈদের জমি উপর হাত বাড়ানোর চেষ্টায় মেতে উঠেছে এবং এ ব্যপারে গত ১৬.০৫.২২ ইং তারিখে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন।মামলার কারন উল্লেখ করে বিবাদী আবু সাঈদ মন্ডল জানান, জমি দেবার নামে ৩৩ হাজার টাকা আত্বসাতের পাঁয়তারায় ষড়যন্ত্রমুলকভাবে মিথ্যা মামলা করে হয়রানী করছে লিপি বেগম।অপর ওয়ারিশিয়ান দেলবার সেখ জানান, ছোনগাছা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি সদস্যা লিপি বেগম নিজের জমিতে মাটি কেটে পুকুর খনন করার পর অন্যের কায়েম জমি দখলের অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন। লিলি বেগম আমাদের বাড়ি সিমানা ঘেষে মাটি কাটায় আমাদের কায়েম জমি ভেঙ্গে তার পুকুরে পড়ে। এতে আমরা তিন লক্ষ টাকার মাটি ফেলে নিজের বসতভিটা রক্ষা করতে পেরেছি। লিপি বেগম একজন মামলা ও ধাপ্পাবাজ মহিলা। অন্যের ক্ষতি করাই তার নৈতিক বৈশিষ্ট। এ বিষয়ে এলাকাবাসী একাধিকবার শালিশী বৈঠক করা হলে কোন রায় মানেন না অর্থলোভী লিপি বেগম।এ বিষয়ে  লিপি বেগমের চাচাতো ভাই জাহাঙ্গীর জানান, আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী ও অর্থনৈতিক ক্ষতি সাধন করেছে। লিপি বেগম এর অত্যাচারে  এলাকাবাসি অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন।বিষয়টি সঠিকভাবে তদন্ত করে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার দাবী জানান ভুক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসি।

Side banner

সারাদেশ বিভাগের আরো খবর

Small Banner