AlokitoBangla
  • ঢাকা বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০
banner

এবার নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপেও অতিথি দল!


FavIcon
স্পোর্টস ডেস্ক:
প্রকাশিত: নভেম্বর ২৫, ২০২৩, ০৭:৪৬ পিএম
এবার নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপেও অতিথি দল!
এবার নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপেও অতিথি দল!

সবশেষ পুরুষ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে অতিথি দল হিসেবে অংশ নিয়ছিল কুয়েত ও লেবানন। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা এসব দলগুলোর বিপক্ষে খেলে এ অঞ্চলের দেশগুলো হয়ে উঠছে আরো লড়াকু। বাংলাদেশ যে সাফের পর থেকে ধারাবাহিক ভালো ফুটবল খেলছে। মঙ্গলবার লেবাননের সঙ্গে ড্র করার পর সাফের সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন বলেন, সাফে শক্তিশালী অতিথি দল খেলানোর সুফল পেতে শুরু করেছি আমরা। এই ধারণা থেকেই ছেলেদের সাফের পর এবার নারীদের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপেও অতিথি দল অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি চিন্তা করছে সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সাফ)।
সিনিয়র নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। আগামী বছর অক্টোবরে পরের আসরটি অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ, নেপাল ও ভুটান নারী সাফের আয়োজক হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তবে এখনো ভেন্যু চূড়ান্ত করিনি সাফ। কিছুদিনের মধ্যেই ভেন্যু ঠিক করা হবে বলে জানিয়েছেন সাফের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল। এই আসরেই একটি অথবা দুটি অতিথি দল আমন্ত্রণ জানানোর কথা জানিয়েছন সাফ সাধারণ সম্পাদক।

   

( দৈনিক আলোকিত বাংলা Apps এখন গুগল-প্লে স্টোরে ) 

তবে সেটা করা হবে সাফের স্পন্সর স্বত্ব যারা পাবে তাদের সঙ্গে আলোচনা করেই। এ বিষয়ে আনোয়ারুল হক হেলাল বলেন, ‘আমরা যখন গত সাফে অতিথি দল অন্তর্ভুক্তি করি তখন অনেক দেশই সমালোচনা করেছে। অনেকের ভয় ছিল, তাতে শিরোপা এ অঞ্চলের দলের কাছে থাকবে না। কিন্তু সাফে ঠিকই ভারত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কুয়েতকে হারিয়ে। বিশ্বকাপের বাছাইয়ে সেই কুয়েতকে আবারও হারিয়ে এসেছে ভারত। বাংলাদেশ সাফে লেবাননের বিপক্ষে দুর্দান্ত ফাইট করে শেষের দিকে ভুলের কারণে হেরেছে। সেই লেবাননের বিপক্ষে দুই দিন আগে ড্র করেছে। সাফের সেমিফাইনালে বাংলাদেশ অনেক ভালো ফুটবল খেলেছে কুয়েতের বিপক্ষেও। বিশ্বকাপের বাছাইয়ে লেবাননের বিপক্ষে বাংলাদেশের ড্র করা শক্তিশালী দলগুলোর বিপক্ষে খেলার সুফল। যে কারণে আমরা আগামী নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে আমরা অতিথি দল খেলানোর চিন্তা করছি। তাতে নারী জাতীয় দলের পারফরম্যান্স বাড়বে।’ এরই মধ্যে নারীদের বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্টে অতিথি খেলিয়েছে সাফ। এ বছর ২০ থেকে ২৮ মার্চ ঢাকায় অনুষ্ঠিত সাফ অনূর্ধ্ব-১৭ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে অতিথি দল হিসেবে ছিল রাশিয়া। ভারত, বাংলাদেশ, নেপাল ও ভুটান-এই চার দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল রাশিয়ান কিশোরীরা।’ সাফের এই সিদ্ধান্তকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছে ভারত। বাফুফের নারী উইংয়ের চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণও বিষয়টি নিয়ে রোমাঞ্চিত। তিনি বলেন, আমরা এই মুহূর্তে দক্ষিণ এশিয়ার সেরা। এখানে আমাদেও প্রমানের কিছু নাই। এখান আমাদের এই শিরোপা ধরে রাখার পাশাপাশি এশিয়ান সার্কিটে নিজেদের সামর্থ্যের জানান দিতে হবে। তাই সাফে যদি দক্ষিণ এশিয়ার বাইরের কোন দেশ অংশ নেয় তাহলে ভালোই হবে। টুর্নামেন্টও জমবে।’ তবে সাফে কাদের আমন্ত্রণ জানানো হবে, তারা এশিয়ার না এশিয়ার বাইরের কোনও দল হবে সেই বিষয়ে কিছু পরিষ্কার করেননি সাফ সাধারণ সম্পাদক। সাফের সবশেষ আসর বসেছিল নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে। দক্ষিণ এশিয়ার সাত দলকে নিয়েই অনুষ্ঠিত হয়েছিল ওই আসর। ফাইনালে নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে সাউথ এশিয়ায় প্রথম শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পরেছিল বাংলাদেশ।
 

Banner
Side banner
Side banner