AlokitoBangla
  • ঢাকা রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯
banner

মেট্রো থেকে নেমেই মিলছে বিআরটিসির শাটল বাস আগারগাঁও থেকে মতিঝিল, উত্তরা স্টেশন থেকে


FavIcon
অনলাইন ডেস্ক:
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ২৯, ২০২২, ০৯:২৯ পিএম
মেট্রো থেকে নেমেই মিলছে বিআরটিসির শাটল বাস আগারগাঁও থেকে মতিঝিল, উত্তরা স্টেশন থেকে
মেট্রো থেকে নেমেই মিলছে বিআরটিসির শাটল বাস আগারগাঁও থেকে মতিঝিল, উত্তরা স্টেশন থেকে

রাজধানীতে সাধারণ যাত্রীদের জন্য চালু হওয়া মেট্রোরেলে যাতায়াত সহজ করেছে বিআরটিসির শাটল বাস। আগারগাঁও স্টেশন থেকে যারা মেট্রোরেলে করে উত্তরা উত্তর স্টেশনে এসে নামছেন, তাদের তিনটি গন্তব্যে পৌঁছে দিচ্ছে বিআরটিসির শাটল বাস। বিআরটিসির এই দ্বিতল বাসে যাত্রীরা দিয়াবাড়ি, হাউজবিল্ডিং এবং আব্দুল্লাপুরের মধ্যে চলাচল করতে পারছেন। ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ১২ টাকা।

অন্যদিকে উত্তরা উত্তর থেকে আগারগাঁও স্টেশনে যারা আসছেন তাদের পাঁচটি গন্তব্যে পৌঁছে দিচ্ছে এ বাস। আগারগাঁও থেকে খামারবাড়ি/ফার্মগেট, ভাড়া (১০ টাকা), কারওয়ান বাজার/বাংলামোটর (১৫ টাকা), শাহবাগ (২০ টাকা), গুলিস্তান/প্রেস ক্লাব (২৫ টাকা), মতিঝিল (৩০ টাকা)। সকাল ৮ থেকেই মেট্রা চালুর সময় স্টেশনে ছিল এ বাস।

বাসে উঠতে স্টেশন থেকে নির্ধারিত টাকায় টিকেট কাটতে হচ্ছে। তবে এ বাসে মেট্রোরেলের যাত্রী ছাড়াও যেখানে যেখানে স্টপেজ রয়েছে সেখান থেকেও যাত্রী উঠানামার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। তবে স্টেশন ছাড়া অন্য স্টপেজ থেকে উঠলে বাসের ভেতরে থাকা হেলপার তাকে টিকেট কেটে দিচ্ছেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দ্বিতলবিশিষ্ট বাসগুলোতে মোট ৭৫টি আসন রয়েছে। বৃহস্পতিবার আগারগাঁও স্টেশন ২০ টি ও উত্তরা স্টেশনে ১০ টি বাস চলতে দেখা গেছে। তবে যাত্রী বাড়লে আরও ২০ টি বাস যোগ হবে বলে জানা গেছে। আর আগারগাঁও মেট্রো স্টেশনের বি গেটের মুখেই রয়েছে আগারগাঁও-মতিঝিল রুটের শাটল বাস সার্ভিসের কাউন্টার।

অন্যদিকে আগারগাঁও মেট্রোরেলের যাত্রীরা উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে নিচে নামলেই বের হওয়ার গেটের সামনেই এই সেবা চালু রেখেছে বিআরটিসি। সেখানে এসব বাসে ওঠার জন্যও রাখা হয়েছে একটি কাউন্টার। তবে কাউন্টার ছাড়াও বাসের ভেতরে টিকিট সংগ্রহের সুযোগ রয়েছে।

যারা আগারগাঁও থেকে মেট্রোরেলে করে উত্তরা উত্তর স্টেশনে আসছেন তারাই মূলত এই মেট্রোরেল শাটল বাস সার্ভিসের যাত্রী। এই বাসে যেকোনো দূরত্বেই সর্বনিম্ন ভাড়া ১০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ভাড়া ১২ টাকা। একের পর এক বাস সিরিয়ালে রাখা হয়েছে স্টেশনের নিচেই। যাত্রী এলেই মুহূর্তে বাস পূর্ণ হয়ে যাচ্ছে, সেই সঙ্গে বাসগুলো ছেড়ে যাচ্ছে।

বিআরটিসির শাটল বাস সার্ভিসের টিকিট কাউন্টারে দায়িত্বরত ম্যানেজার মাসুম আহমেদ বলেন, মেট্রোরেলে আসা যাত্রীরা স্টেশনে নেমে যেন এখান থেকে কাঙ্ক্ষিত গন্তব্যে যেতে পারেন সেজন্যই মূলত এই বাস সার্ভিস। বাসগুলো দ্বিতল তাই যাত্রী ধারণক্ষমতাও বেশি।

মেট্রোরেলে চড়ে আগারগাঁও থেকে উত্তরা উত্তর স্টেশনে এসেছেন হাবিবা খাতুন। তিনি বলেন, খুব ভালোভাবেই প্রথমবারের মতো মেট্রোরেলে যাত্রা করলাম, এটা অন্যরকমের এক অভিজ্ঞতা। এরপর স্টেশনে নেমেই বিআরটিসির বাসও পেয়ে গেলাম। যাত্রীরা স্টেশনে নেমেই যেকোনো গন্তব্যে যাওয়ার জন্য এই বাসগুলো পেয়ে যাচ্ছেন।

আগারগাঁও বাস চালক মো. নজরুল ইসলাম বলেন, এমন একটি নতুন সার্ভিসের যুক্ত হতে পেরে ভালো লাগছে। নিশ্চয়ই এই সার্ভিসটি যাত্রীদেরও ভালো লাগবে। এর মধ্য দিয়ে নতুনদের কর্মসংস্থান তৈরি হবে।

এ প্রসঙ্গে আগারগাঁও স্টেশনে দায়িত্বরত বিআরটিসির কল্যাণপুর বাস ডিপোর ট্রাফিক ইনচার্জ মো. নাদিম হোসেন বলেন, ‘মেট্রোরেল বাস সার্ভিসের আওতায় এই মুহূর্তে আমরা ৩০টি বাস প্রস্তুত রেখেছি। আমাদের আগারগাঁও প্রান্তে ২০টি এবং উত্তরা দিয়াবাড়ি প্রান্তে ১০টি বাস রাখা হয়েছে। চাহিদা অনুসারে বাসের সংখ্যা বাড়ানো বা কমানো হবে।’

Banner
Side banner
Side banner